লাইফস্টাইল

অনিদ্রায় ভূগছেন? ঘুম পাড়িয়ে দেবে মোবাইল অ্যাপ

লাইফস্টাইল ডেস্ক : সারাদিন কর্মব্যস্ততা শেষে রাতে যখন দু চোখের পাতা এক হতে চায় না, এর চেয়ে কষ্টকর কিছু হতে পারে? সারা রাত এ পাশ-ও পাশ করা, ঘন ঘন পানির পিপাসা, বারবার বাথরুমে যাওয়ার অভিজ্ঞতা খুবই ভয়ংকর। তবে জেগে জেগে ভোর দেখার দিন এবার হয়তো শেষ হতে চলল। এখন থেকে নিশ্চিন্তে ঘুম পাড়িয়ে দেবে আপনার মোবাইল ফোন। ঠিকই পড়ছেন, যে মোবাইলকে ঘুম নষ্টের অন্যতম প্রধান কারণ হিসাবে ধরা হতো, এবার সেই মোবাইলই ঘুম এনে দেবে।

161830sleep_kalerkantho_comস্লিপরেট অ্যাপের কাজ
স্মার্টফোনে স্লিপ রেট অ্যাপ ডাউনলোড করে ঘুমনোর কয়েক ঘণ্টা আগে ফোনটিকে চেস্ট বেল্ট দিয়ে বুকে বেঁধে নিন। ভয় নেই, চেস্ট বেল্টের সাহায্যে ফোন বুকে লেগে থাকলে হার্ট বা ফুসফুসের ক্ষতি হয় না। বরং এই ধরনের চেস্ট বেল্টগুলো বানানোই হবে ডাক্তারি পদ্ধতিতে। সে আপনার হৃদয়ের স্পন্দন, শ্বাস-প্রশ্বাসের গতি মেপে সমস্যার কারণ ও গভীরতা বুঝে কিছু নির্দেশ দিতে থাকবে।

যেমন, ঘুমানোর এক ঘণ্টা আগে হালকা গরম পানিতে স্নান করতে বলতে পারে। মন ভালো করা গান শুনতে বা হালকা বইপত্র পড়তেও বলতে পারে। খোলা হাওয়ায় কয়েক পাক হেঁটে আসার কথাও বাতলাতে পারে এই অ্যাপ। মানসিক চাপ বা উদ্বেগের কারণে ঘুম হচ্ছে না মনে হলে জানাতে পারে স্ট্রেস ম্যানেজমেন্টের কিছু পন্থা। দরকার হলে মন ভালো করা হালকা কিছু সুর, কিছু গানও বাজাতে পারে এই অ্যাপ। আপনার কাজ হলো, ঘুম আনতে অ্যাপের নির্দেশ মেনে চলা।

এই অ্যাপ আদৌ কতটা কার্যকর?
স্লিপ ম্যানেজমেন্টের চিকিৎসক শুভজিৎ ঘোষের মতে, গতিময় জীবনের সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে একটি ফোনেই অনেক সুবিধা পেতে চাই আমরা। প্রয়োজনীয় নিয়ম, ডায়েট এসব প্রতিদিন মানাও সম্ভব হয় না। অনেকের ক্ষেত্রেই নানা কারণে ঘুম আসে না। সে সব যদি কোনো অ্যাপ বলে দিতে পারে, মন্দ কী? অ্যাপের নির্দেশগুলো ঘুমের পক্ষে উপকারী। ডাক্তাররাও সাধারণত ইনসমনিয়া কাটাতে এসব উপায়ের কথাই বলে থাকেন।

এই অ্যাপ এক জন চিকিৎসকেরই বানানো। ফ্যাট কমানো বা স্ট্রেস ম্যানেজমেন্টের অন্যান্য অ্যাপের মতোই এই অ্যাপের ব্যবহারও সুস্থ শরীরে তেমন কোনো ক্ষতি করে না। স্লিপরেট অ্যাপ ব্যবহার করলেও সারা দিনের অনিয়মকেও অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করতে হবে। চেষ্টা করতে হবে অ্যাপ ও ঘুমের ওষুধ কোনোটারই যেন প্রয়োজন না পড়ে। তবে স্লিপ অ্যাপনিয়ার মতো অসুখ থাকলে অবশ্যই ঘুম আনার বিষয়ে চিকিৎসকের পরামর্শ প্রয়োজন। এ ছাড়া ক্রনিক ইনসমনিয়ার রোগী হলে অ্যাপের নির্দেশ শুনে চললেও মাঝেমধ্যেই চেক আপ করানো জরুরি।



জুমবাংলানিউজ/এএসএমওআই




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ