জাতীয় শিক্ষা

আবরার হত্যা নিয়ে এবার মুখ খুললেন ছাত্রলীগের বুয়েট সভাপতি

Dark Mode

1জুমবাংলা ডেস্ক : বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) ছাত্র আবরার ফাহাদ হ’ত্যার ঘটনায় জড়িতরা ছাত্রলীগের সঙ্গে যুক্ত এবং তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি খন্দকার জামিউস সানি।

তিনি বলেন, সোয়া ৩ টার পর খবর পাই। খবরটা পাওয়ার পর পরই হলে যাই। সেসময় সেখানে শেরে বাংলা হলের ছাত্রকল্যাণ পরিচালক, শেরে বাংলা হলের প্রভোস্ট, সহকারী প্রভোস্ট উপস্থিত ছিলেন। বুয়েট ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রাসেল উপস্থিত ছিলেন। মা’রধর ও হ’ত্যাকাণ্ডে কারা জড়িত ছিল এমন প্রশ্নের জবাবে ছাত্রলীগের বুয়েট সভাপতি জিয়ন নামের একজনের নাম উচ্চারণ বলেন, জিয়ন রয়েছে। মুন্না ছিল না, কারণ মুন্না গতকালই বাড়ি থেকে অনেক রাতে এসেছে। সিক্সটিন ব্যাচের কয়েকজন জড়িত। সেভেনটিন ব্যাচের (দ্বিতীয় বর্ষ) কয়েকজন ফাহাদকে রুম থেকে ডেকে আনেন বলেও তিনি জানান। যারা মারধরে জড়িত তারা সবাই ছাত্রলীগের পোস্টেড নেতা।

জামিউস সানি বলেন, ‘ছাত্রলীগের পক্ষ থেকে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এমন একটি ঘটনায় ছাত্রলীগের কর্মীরা জড়িত থাকতে পারে- এমন ভাবাও কষ্টের। এটা খুবই ন্যাক্কারজনক। এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এখানে ছাত্রলীগের ছেলে হিসেবে নয়, অপরাধী যে-ই হোক তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

এ ঘটনায় কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ দুই সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কমিটিকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে। নিহত ফাহাদ বুয়েটের ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি কুষ্টিয়ায়। তিনি থাকতেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শেরে বাংলা হলের ১০১১ নম্বর কক্ষে।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর