ক্রিকেট (Cricket) খেলাধুলা

আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্ত, সেঞ্চুরি বঞ্চিত জেসন রয়

স্পোর্টস ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত ব্যাটিং করছিলেন ইংলিশ ওপেনার জেসন রয়। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে অসিদের বিপক্ষে ২২৪ রানের মামুলি স্কোর তাড়া করতে নেমে রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান ইংলিশ এ ওপেনার।

উদ্বোধনী জুটিতে জনি বেয়ারস্টোকে সঙ্গে নিয়ে ১৭.২ ওভারে ১২৪ রানের পার্টনারশিপ গড়েন রয়। ৪৩ বলে ৩৪ রান করে ফেরেন জনি বেয়ারস্টো।

৫০ বলে ফিফটি করা রয় একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে সেঞ্চুরির পথেই ছিলেন। কিন্তু প্যাট কামিন্সের বলে উইকেটকিপার অ্যালেক্স কেরির জোড়ালো আবেদনে সাড়া দিয়ে রয়কে আউট দিয়ে মাঠ ছাড়া করেন কুমার ধর্মসেনা ও মারাইস ইরাসমাস।

আম্পয়ারের আউটের সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারেননি রয়। তিনি মাঠেই প্রতিবাদ জানান। বারবার দুইহাত প্রসারিত করে বলছিলেন, এটা কটবিহাইন্ড নয়! বরং ওয়াইড। আক্ষেপ নিয়ে জেসন রয় যখন মাঠের সীমানা রশির কাছাকাছি পৌঁছান ঠিক তখন রিভিউতে স্পষ্টই দেখা যায়, বলটি ওয়াইডই ছিল।

আম্পায়ারদের ভুল সিদ্ধান্তের কারণে তার ক্যারিয়ারের একটি সম্ভাবনাময় সেঞ্চুরির অপমৃত্যু হলো! মাত্র ৬৫ বলে নয়টি চার ও ৫টি ছক্কায় ৮৫ রান করে ফেরেন জেসন রয়।

অস্ট্রেলিয়া ২২৩/১০

পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ২২৩ রানেই অলআউট করে দিল ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের মতো গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ৪৯ ওভারেই অলআউট অ্যারন ফিঞ্চের দল।

ক্রিস ওকস ও জফরা আর্চারের গতির মুখে পড়ে ১৪ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল অস্ট্রেলিয়া। সেই অবস্থা থেকে দলকে খেলায় ফেরান অ্যালেক্স কেরি ও স্টিভ স্মিথ। তার ৮৫ রানের দায়িত্বশীল ইনিংসে ভর করে শেষ পর্যন্ত ২২৩ রান তুলতে সক্ষম হয় অস্ট্রেলিয়া।

বিশ্বকাপের গত ১১ আসরের মধ্যে পাঁচবার শিরোপা জিতে নিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। বর্তমান চ্যাম্পিয়নও তারা। এবারের আসরের শুরু থেকেই দুর্দান্ত খেলে এসেছে অ্যারন ফিঞ্চের দল।

কিন্তু সবশেষ ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে (৩২৬ রানের টার্গেট তাড়া করতে নেমে মাত্র ১০ রানের পরাজয়) হেরে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ থেকে দুইয়ে নেমে যাওয়া দলটি আজ সেমিফাইনালেও প্রত্যাশিত ব্যাটিং করতে পারেনি।

সবচেয়ে বেশি বিশ্বকাপজয়ী অসি দলটিকে ২২৩ রানে অলআউট করে ২৭ বছর পর আরও একটি ফাইনালে খেলার স্বপ্ন দেখেছে ইংল্যান্ড। সবশেষ ১৯৯২ সালের বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে হেরে তৃতীয়বারের মতো শিরোপা বঞ্চিত হয়েছিল ইংল্যান্ড। প্রায় তিন দশক পর চতুর্থবারের মতো ফাইনালে খেলার অপেক্ষায় ইংলিশরা।


জুমবাংলানিউজ/এসএস




আপনি আরও যা পড়তে পারেন