ক্রিকেট (Cricket) খেলাধুলা

আরো শক্তি নিয়ে ফেরার প্রত্যয় সাকিবের

Dark Mode

aliz

স্পোর্টস ডেস্ক : জুয়াড়িদের কাছ থেকে ম্যাচ পাতানোর প্রস্তাব পেয়েও তা গোপন করায় নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েছেন সাকিব আল হাসান। অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় আইসিসি দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ দলের টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি অধিনায়ককে। দায় স্বীকার করে সাকিব বলেছেন, ‘আমি সত্যিই ব্যথিত।’

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নিজেদের ওয়েবসাইটে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে সাকিবের নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি জানায় আইসিসি। যেখানে সাকিব বলেছেন, ‘আমি সত্যিই ব্যথিত, যে খেলাটা ভালোবাসি তা থেকে নিষেধাজ্ঞা পেয়ে। অনৈতিক প্রস্তাব আসার পরও ঠিকমতো তা না জানানোয় আমি নিজের ভুল পুরোপুরি স্বীকার করি।’

সাকিবের বিরুদ্ধে মোট তিনটি অভিযোগ আনা হয়েছে। দায় স্বীকার করে সাকিব আরো বলেন, ‘আইসিসি দুর্নীতি বিরোধী ইউনিট দুর্নীতি দমনে কাজ করে যাচ্ছে বরাবরই। সেখানে আমি নিজের দায়িত্ব ঠিকমতো পালন করতে পারিনি। ’

দুই বছরের মধ্যে এক বছর স্থগিত নিষেধাজ্ঞা হওয়ায় সাকিব মাঠে ফিরতে পারবেন ২০২০ সালের ২৯ অক্টোবর। বাকি এক বছর তাকে মেনে চলতে হবে আইসিসির নানা নীতিমালা।

সাকিব অঙ্গীকার করেছেন, ‘বিশ্বের অধিকাংশ সমর্থক ও খেলোয়াড়ের মতো আমিও একটি দুর্নীতিমুক্ত খেলার জগৎ চাই। আমি আশা করছি, সামনে আকসুর শিক্ষামূলক অনুষ্ঠানে আমি সাহায্য করব এবং নিশ্চিত করার চেষ্টা করব তরুণদের কেউ যাতে আমার মতো ভুল না করে। যেভাবে আপনারা আমাকে সবাই সাপোর্ট করে আসতেছেন সব সময় সব মানুষরা, বিসিবি ও সরকার থেকে শুরু করে মিডিয়ার সবাই। আশা করি এই সাপোর্টা আপনাদের থাকবে। তাহলে অবশ্যই আমি আগের থেকে আরো শক্তি নিয়ে ফিরব ইনশাল্লাহ।



জুমবাংলানিউজ/এসএস

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর