বিনোদন

আল্টিমেটাম পেয়েই কাজে ফিরছেন শাকিব!

Dark Mode

বিনোদন ডেস্ক : ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় চিত্রনায়ক শাকিব খান। সময় মতো সিনেমার কাজ শেষ না করার অভিযোগ এনে শাকিব খানকে সাত দিনের আল্টিমেটাম দিয়েছেন প্রযোজক সেলিম খান। এর একদিন না পেরুতেই সুর পাল্টে কাজে ফিরছেন শাকিব খান।

প্রযোজক সেলিম খান বলেন, ‘এ বিষয়ে এখনো কিছু জানি না। এখন আমি ঢাকার বাইরে আছি। পরিচালকের সঙ্গে কথা বললে জানতে পারবেন। শাকিবের সঙ্গে আমার কথা হয়নি।’

পরিচালক শাহীন সুমন বলেন, ‘আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর থেকে তিন দিন ডাবিংয়ের তারিখ দিয়েছেন শাকিব খান। এই তিন দিন কাজ করলে আশা করছি, কাজ শেষ হবে।’

এদিকে বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘আগুন’ সিনেমার শুটিংও এই সময়ের মধ্যে হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেলিম খানের নোটিশ পেয়ে সে তারিখ পরিবর্তন করে ডাবিংয়ের ডেট দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

শাপলা মিডিয়া প্রযোজিত সিনেমা ‘একটু প্রেম দরকার’। শাহীন সুমন পরিচালিত এই সিনেমার শুটিং ২০১৮ সালের জুন মাসে শুরু হয়। এক বছর পার হলেও সিনেমাটির কাজ এখনো শেষ হয়নি। সময় মতো সিনেমার কাজ শেষ না করায় শাকিব খানের কাছে গতকাল লিখিত নোটিশ পাঠিয়েছেন চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান।

নোটিশে বলা হয়েছে, শাকিব খান সিনেমাটিতে অভিনয় করার জন্য ৬০ লাখ টাকা পারিশ্রমিক নেন। তার পারিশ্রমিক পরিশোধ করা হয় ২০১৮ সালের ২৬ জুন। এদিন রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে সিনেমাটির মহরতে অংশ নেন তিনি। ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে সিনেমাটির শুটিং শুরু করেন শাকিব খান। তবে সময় মতো শুটিংয়ে উপস্থিত থাকতেন না বলে শাকিবের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছেন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান। শাকিবের অনিয়মের জন্য সিনেমাটিতে অতিরিক্ত ১ কোটি টাকা খরচ হয়েছে বলেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়।

গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর সিনেমাটি মুক্তি দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কাজ অসম্পূর্ণ থাকায় তখন সিনেমাটি মুক্তি পায়নি। আবারো আগামী ১৬ ডিসেম্বর সিনেমাটি মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাপলা মিডিয়া। আগামী সাত দিনের মধ্যে শাকিব খান সিনেমাটির কাজ শেষ করার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত না নিলে শাপলা মিডিয়া আইনের আশ্রয় নিবে বলেও এ নোটিশে জানানো হয়েছে।

পাশাপাশি নোটিশের কপি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতি ও চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির কাছেও পাঠানো হয়েছে।

গতকাল প্রযোজক সেলিম খান বলেছিলেন, ‘আমার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের প্যাডে সাত দিনের সময় দিয়ে নোটিশ পাঠিয়েছি। এর মধ্যে কাজটি না করলে বাংলাদেশের জনগনকে জানানোর জন্য সংবাদ সম্মেলন করব। এর পর আইনি ব্যবস্থা নিব। ক্ষতিপূরণ চেয়ে মামলা করব শাকিব খানের নামে। এ পর্যন্ত কমপক্ষে ২০ বার কাজটি করার জন্য তাকে অনুরোধ করেছি। আজ করবে কাল করবে বলে কাজটি করছে না। এটা শেষ না করে দুইটা সিনেমা মুক্তি দিয়েছেন, আরেকটির কাজ করছেন। অথচ আমার এখানে মাত্র দুই দিনের কাজ।’

২০১৬ সালে শাকিব খান আপত্তিকর বিভিন্ন মন্তব্য করে চলচ্চিত্র পরিবারের রোষানলে পড়েন। তখন চলচ্চিত্র পরিবার বয়কট করেন শাকিব খানকে। তাকে নিয়ে সিনেমা নির্মাণ করাও বন্ধ করে দেন চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতি। বিপাকে পড়ে যান শাকিব খান। ঠিক তখন শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান তাকে নিয়ে কয়েকটি সিনেমার কাজ শুরু করেন। বলা চলে, সাহসী হয়ে শাকিব খানের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছিলেন এই প্রযোজক।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর