বিনোদন

ইনস্টাগ্রামে ‘লাইক’ নেই, কান্না থামছে না মডেলের!

বিনোদন ডেস্ক : সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের কল্যাণে আজকাল তারকাখ্যাতি পাওয়া অনেকটাই সহজ হয়ে গেছে! সেখান থেকে আয়-রোজগারের পথও বের করে নিয়েছেন অনেকেই। একারণে তাদের কাছে একেকটি পোস্টের লাইক-কমেন্ট অনেক দামি! কিন্তু, হঠাৎ করে ইনস্টাগ্রামের লাইক (হার্ট) গায়েব হয়ে যাওয়ায় বিপাকে(!) পড়েছেন এক মডেল।

জানা যায়, গত সপ্তাহে ইনস্টাগ্রাম বেশ কয়েকটি দেশে ‘লাইক’ গোপন করার নতুন ফিচার চালু করেছে। ব্যবহারকারীদের লাইক-কমেন্ট নিয়ে অতিরিক্ত দুশ্চিন্তা থেকে মুক্তি দেওয়ার ভাবনা থেকে ফিচারটি পরীক্ষামূলকভাবে চালু করা হয়।

তবে, লাইক দেখা না যাওয়ায় রাগ করে আর ইনস্টাগ্রামে না আসার ঘোষণা দিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান মডেল মিকেলা টেসটা। ফেসবুকের মালিকানাধীন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমটিতে তার দু’টি আইডি, একটিতে ৪৫ হাজার ও অপরটিতে প্রায় ১৩ হাজার ফলোয়ার রয়েছে।

মিকেলার দাবি, ইনস্টাগ্রাম পোস্টে প্রতি এক হাজার লাইক থেকে তিনি এক হাজার অস্ট্রেলিয়ান ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৫৮ হাজার টাকা) আয় করেন।

তবে, ইনস্টাগ্রাম তাদের ফিচার পরিবর্তনের পর থেকেই খুব কষ্টে আছেন নিজেকে মডেল দাবি করা এ নারী! ব্যবসায় ধস নেমেছে দাবি করে নিজের আইডিতে পোস্ট করা এক ভিডিওতে অনবরত কাঁদতে দেখা গেছে তাকে।

পরে, ফেসবুকের এক পোস্টে মিকেলা টেসটা লেখেন, যে যা-ই ভাবুক, ইনস্টাগ্রাম সত্যিকারের চাকরি। এখানে যে যেখানে আছে, সবাই কঠোর পরিশ্রম করেই সেখানে পৌঁছেছে। এর জন্য আমি নিজের রক্ত, ঘাম, অশ্রু এক করে ফেলেছি, যা কেড়ে নেওয়া হচ্ছে। এর জন্য শুধু আমি নই, প্রতিটি ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান ভুগছে।

‘সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার’ বর্তমানে কোটি টাকার ব্যবসা হয়ে দাঁড়িয়েছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সুপরিচিতদের একেকটি পোস্টের জন্য বেশ বড় অংকের টাকা দিয়ে থাকে। এ কারণে, অনেকের কাছেই ব্যক্তি জীবনের চেয়ে অনলাইনের জগৎটাই বড় হয়ে দাঁড়ায়।

গত সপ্তাহে, এক ইনস্টাগ্রাম মডেল তার বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে বিচ্ছেদ করেন, কারণ সে একসঙ্গে ছবি পোস্ট করার দাবি জানিয়েছিল। কথিত ওই মডেলের ভয়, যুগল ছবি দেখলে তার ফলোয়ার কমে যাবে, যার প্রভাব পড়বে আয়-রোজগারেও।

জুমবাংলানিউজ/এসআর


আপনি আরও যা পড়তে পারেন