গাজীপুর জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ

কাশিমপুর কারাগারে গ্রেনেড হামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত হুজি জঙ্গির মৃত্যু

গাজীপুর প্রতিনিধি: গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় সমাবেশস্থলের কাছে শক্তিশালী বোমা পুঁতে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত এবং রমনার বটমূলে বোমা হামলা ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলায় যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদের (হুজি) সদস্য হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়ার (৬৩) মৃত্যু হয়েছে।

শনিবার সন্ধ্যায় কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে তার মৃত্যু হয়। মৃত হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া তিনি সিলেটের কানাইঘাট থানার পর্বতপুর গ্রামের মৃত মাওলানা আব্দুর রশিদের ছেলে।

কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার মো. শাহজাহান জানান, শনিবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে আলোচিত কয়েকটি মামলায় দণ্ডপ্রাপ্ত কয়েদি হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়া হঠাৎ অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান। পরে তাকে দ্রুত কারা হাসাপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে তার অবস্থার উন্নতি না হওয়াও গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। ওই হাসপাতালেই তিনি মারা যান।

তবে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষণ দাস জানান, হাফেজ মাওলানা ইয়াহিয়াকে মৃত অবস্থায় এ হাসপাতালে আনা হয়েছিল।

কাশিমপুর কারাগার সূত্রে জানা গেছে, ২০০০ সালের ২০ জুলাই গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় সমাবেশস্থলের কাছে শক্তিশালী বোমা পুঁতে রেখে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যার চেষ্টা মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামি হাফেজ ইয়াহিয়া। তিনি ২০০১ সালে রমনা বটমূলে পহেলা বৈশাখে বর্ষবরণ অনুষ্ঠানে বোমা হামলা মামলায়ও যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত হন (রায় হয় ২০১৪ সালের ২৩ জুন)। এছাড়া ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের মহাসমাবেশে গ্রেনেড হামলা মামলায় (রায় হয় ২০১৮ সালের ১০ অক্টোবর) তাকে যাবজ্জীবন দণ্ড দেন আদালত। ২০১২ সাল থেকে তিনি কাশিমপুর হাইকিসিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি ছিলেন।

 

জুমবাংলানিউজ/একেএ


আপনি আরও যা পড়তে পারেন