লাইফস্টাইল

কিডনির সমস্যার নীরব উপসর্গ

লাইফস্টাইল ডেস্ক : শরীরের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হল বৃক্ক বা কিডনি। কোনও কারণে কিডনি আক্রান্ত হলে বা কিডনিতে কোনও রকম সংক্রমণ হলে শরীরে একের পর এক জটিলতা দেখা দিতে পারে। কিডনির সমস্যা বা অসুখকে সাধারণত ‘নীরব ঘাতক’ বলা হয়। কারণ, কিডনির সমস্যা হলে নির্দিষ্ট কোনও উপসর্গ দেখা যায় না। তবে কিছু কিছু লক্ষণ দেখা দিলে আগে থেকে সতর্ক হওয়া দরকার। যেমন-

১. মুখ, চোখের কোল যদি হঠাৎ অস্বাভাবিক ভাবে ফুলে ওঠে, তা হলে অবশ্যই সতর্ক হওয়া জরুরি। কারণ কিডনির সমস্যা হলে এটা হতে পারে।

২. বারবার প্রসাবের বেগ অনুভূত হলে সাবধান হওয়া প্রয়োজন। কারণ কিডনি সঠিক ভাবে কাজ না করলে এই সমস্যা দেখা দিতে পারে।

৩. হাত, পা বা পিঠের পেশিতে ঘন ঘন অস্বাভাবিক টান বা খিঁচুনি অনুভূত হলে সতর্ক হন। কারণ কিডনির সমস্যা বা অসুখ হলে এমনটা হতে পারে।

৪. হঠাৎ করে ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক হয়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া জরুরি। অনেকসময় কিডনি বিকল হয়ে পড়লে শরীরের ক্ষতিকর পদার্থগুলি জমে ত্বককে শুষ্ক ও রুক্ষ করে দেয়।

৫. গোড়ালি বা পায়ের পাতা হঠাৎ অস্বাভাবিক ফুলে গেলে বিশেষজ্ঞর পরামর্শ নিন।

৬. কিডনির সমস্যা থাকলে একাধিকবার মূত্রথলিতে সংক্রমণ হতে পারে। এ ছাড়াও প্রস্রাবের সময় জ্বালা বা ব্যথাও করতে পারে।

৭. পিঠের দিকে, কোমরের একটু উপরে যদি ঘন ঘন ব্যথা অনুভব করেন তা হলে অবশ্যই সতর্ক হওয়া জরুরি। কিডনি ঠিক ভাবে কাজ না করলে অনেক ক্ষেত্রে প্রস্রাবের সঙ্গে রক্ত চলে আসতে পারে।

৮. কিডনির সমস্যায় ঘুমেরও ব্যাঘাত ঘটতে পারে।

৯. রক্তচাপের দ্রুত ওঠানামা, অল্প পরিশ্রমেই ক্লান্ত হয়ে পড়া, অল্পতেই হাঁপিয়ে ওঠা, শ্বাস-প্রশ্বাসের কষ্ট হওয়ার পেছনেও কিডনি সমস্যা থাকতে পারে।

১০. কিডনি ঠিক ভাবে কাজ না করলে অনেক ক্ষেত্রে প্রস্রাবের সঙ্গে রক্ত চলে আসতে পারে। এ ধরণের সমস্যা হলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

সূত্র : জি নিউজ

জুমবাংলানিউজ/এসআর


আপনি আরও যা পড়তে পারেন