গাজীপুর ঢাকা বিভাগীয় সংবাদ

গাজীপুরে সালিশ থেকে উঠিয়ে নিয়ে বিচারপ্রার্থীকে মারধরের অভিযোগ

gazipur

গাজীপুর প্রতিনিধি : গাজীপুরে সালিশ থেকে উঠিয়ে নিয়ে এক বিচারপ্রার্থীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে। সাদা কাগজে স্বাক্ষর না দেয়ায় কাউন্সিলরের উপস্থিতিতে তাকে রড দিয়ে মারধর করা হয়। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে গাজীপুর মহানগরীর ১৩নং ওয়ার্ডের ইটাহাটা এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে।

আহত বিচারপ্রার্থী ফারুক আহমেদ (৩০) ইটাহাটা এলাকার আবুল কাসেমের ছেলে। মাথা ফেটে যাওয়ায় গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযুক্ত মো. ইদ্রিস আলী গাজীপুর মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সহসভাপতি।

আহত ফারুক আহমেদ অভিযোগ করেন, জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে তার অভিযোগের ভিত্তিতে মঙ্গলবার নগরীর ইটাহাটার মতি মার্কেটের কাছে রওশন আলীর বাড়িতে সালিশ-বৈঠক বসে। স্থানীয় ১৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর খোরশেদ আলম সরকারসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শালিসে উপস্থিত ছিলেন। শালিসের এক পর্যায়ে তাকে ও তার বাবাকে সাদা কাগজে স্বাক্ষর দিতে বলা হয়। তিনি স্বাক্ষর দিতে অস্বীকার করায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইদ্রিস আলী সহযোগীদের নিয়ে শালিস থেকে তাকে উঠিয়ে নিয়ে রড দিয়ে বেধড়ক মারধর করে। এতে তার মাথা ফেটে যায়। হাসপাতালে তার মাথায় ৭টি সেলাই দিতে হয়েছে।

এ ঘটনায় অভিযুক্ত ইদ্রিস আলী জানান, ফারুক তার চাচাত ভাই। মুরুব্বিদের সঙ্গে উচ্চবাচ্চ্য করায় বড় হিসেবে একটি থাপ্পড় দিয়েছেন।

স্থানীয় কাউন্সিলর খোরশেদ আলম সরকার জানান, সালিশের সিদ্ধান্ত মানবে কিনা জানতে চাওয়া হলে ফারুকের সঙ্গে ইদ্রিসের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।

জুমবাংলানিউজ/আরএস





সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment