Views: 12

ঢাকা বিভাগীয় সংবাদ

‘গুলি গুলি, অ্যাকশন’ বলা হয়েছে জেলেদের ভয় দেখাতে: ওসি

Screenshot_1জুমবাংলা ডেস্ক : ইলিশ ধরা বন্ধে পদ্মায় লৌহজং থানার ওসি আলমগীর হোসেনের স্পিডবোট নিয়ে অভিযানের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে। পরে তা ছড়িয়ে পড়ে।

এক মিনিট ৫ সেকেন্ডের এই ভিডিওতে দেখা যায়, ওসি আলমগীর হোসেনের নেতৃত্বে মুন্সিগঞ্জের লৌহজং থানা পুলিশের একটি দল স্পিডবোটে নিয়ে জেলেদের একটি স্পিডবোটকে তাড়া করছে। এসময় জেলেদের স্পিডবোটটি পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশের স্পিডবোট থেকে বন্দুক উঁচিয়ে বারবার বলা হয় ‘গুলি কর, গুলি কর’।

এসময় ওসিকে বলতে শোনা যায়, “গুলি হবে গুলি, আজকে গুলি… অ্যাকশন।”

মাছ ধরতে আসা স্পিডবোটটি তাড়া খেয়ে নদীর তীরে ভেড়ার পর ছয়জনকে সেখান থেকে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করতে দেখা যায়।

এ ব্যাপারে লৌহজং থানার ওসি আলমগীর হোসেন বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া অভিযানে আসলে কোনো গুলি করা হয়নি। গুলি গুলি বলে জেলেদের ভয় দেখানোর জন্য বলা হয়েছে।

এদিকে, এই ভিডিও ফেসবুকে প্রকাশ হওয়ার পরই অনেকে এই অভিযানের প্রশংসা করেছেন। তবে কেউ এই অভিযানকে বাড়াবাড়ি বলেও উল্লেখ করেছে।

‘মা ইলিশ’ সংরক্ষণের জন্য ৯ অক্টোবর থেকে ৩০ অক্টোবর পর্যন্ত ইলিশ ধরা নিষিদ্ধ করেছে সরকার।

এটা কোন হলিউডের মুভির দৃশ্য নয় এটা লৌহজং থানার ওসি আলমগীর হোসেনের মা ইলিশ রক্ষার অভিযান।😎😎

Posted by Jony Saddam on Thursday, October 24, 2019