আন্তর্জাতিক ওপার বাংলা

গৃহিনীর গয়না গিলে ফেলেছে গরু, করছে না মলত্যাগও

Dark Mode

c-20191026120632আন্তর্জাতিক ডেস্ক : বিয়ের অনুষ্ঠান থেকে আসার পর পড়নের স্বর্ণের গয়না খুলে রেখেছিলেন রান্নাঘরে পাত্রে। পরে সেই পাত্রেই ফেলেন সবজির উচ্ছিষ্ট আর তা খেতে দেয়া হয় একটি ষাড়কে। অবশেষে ৪০ গ্রাম স্বর্ণের গয়না গেল ষাড়ের পেটে।

ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিমবঙ্গের সিরসা জেলার এক গ্রামে। জেলার জনকরাজ নামে এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে ঘটে এ ঘটনা।

গত পাঁচদিন আগে তার বাড়ির কাছে একটি ষাড় এলে গো-সেবার নিমিত্তে সেই ষাড়টিকে সবজির খোসা ভর্তি পাত্রটি দেয়া হয় খাবার হিসেবে। আর সেখান থেকেই সেখানে থাকা স্বর্ণও গিলে ফেলে ষাড়টি।

গয়নার কথা মনে পড়ার পর খুঁজতে গেলে রান্নাঘরের দরজার কাছে একটি কানের দুল পড়ে থাকতে দেখা যায় পরে বাড়ির সিসিটিভি ফুটের দেখে নিশ্চিত হওয়া যায় স্বর্ণ রাখা পাত্রেই করা হয়েছিল গো-সেবা।

তারপর স্বর্ণ গিলে খাওয়া বেওয়ারিশ ষাড়টিকে খুঁজতে লেগে যায় ৫ ঘণ্টা। ষাড়টিকে খুঁজে পাবার পর থেকেই ষাড়টিকে প্রচুর পরিমাণে খাইয়ে চলছে সে পরিবার, কারণ গিলে ফেলা স্বর্ণ উদ্ধারের একমাত্র উপায় এখন গোবর। কিন্তু বেয়ারা ষাড় গত তিনদিন কোনও মলত্যাগই করছে না। এতে বিপাকে পড়েছে পরিবারটি।

এ ঘটনার পর জেলার লাজপত রায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণী বিজ্ঞানের ডিরেক্টর রবিন্দর শর্মা বলেন, আগে এক্সরে করে দেখতে হবে ষাড়ের পেটে সোনা আছে কিনা। তারপর অপারেশন করে তা উদ্ধার করতে হবে। গোবরের মাধ্যমেও উদ্ধার করা যায় তবে তা জটিল প্রক্রিয়া।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর