জাতীয় রাজনীতি

জিয়াউর রহমান সরাসরি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ত ছিল : কৃষিমন্ত্রী

জুমবাংলা ডেস্ক:  কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, জিয়াউর রহমান সরাসরি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ত ছিল। তিনি অনেককে উস্কে দিয়ে এ হত্যাকান্ড সংগঠিত করেছেন। খবর বাসসের।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ড ছিল আন্তর্জাতিক চক্রান্ত, যার পেছনে ছিল পাকিস্তান ও তাদের এদেশীয় দোসররা। জিয়াউর রহমান সরাসরি বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডে সম্পৃক্ত ছিল। তিনি অনেককে উস্কে দিয়ে এ হত্যাকান্ড সংগঠিত করেন। বেগম খালেদা জিয়া বঙ্গবন্ধুর বিচার নিয়ে অনেক তাল বাহানা করেছেন। প্রেক্ষাপট সবসময় এক থাকে না, ২০০৯ সালে বঙ্গবন্ধু কন্যা বিশ্ব মানবতার মা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার গঠন করে বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার শুরু করেন। এখন শুধু বাকি পলাতকদের বিভিন্ন দেশ থেকে এনে বিচার কার্য সম্পন্ন করা।’

মন্ত্রী আজ কৃষি মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে ঈদ পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে একথা বলেন।

বিএনপি নেতা মওদুদসহ তার সঙ্গে সংশ্লিষ্টদের এ যুগের শয়তান হিসাবে উল্লেখ করে ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘ব্যরিস্টার মওদুদ যখন আইনমন্ত্রী ছিলেন। তখন, বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার করেননি। পরে আইন করে বিচার বন্ধ করেছিল। সেআইন বাতিল করা হয়েছে, তারপরও এই হত্যাকান্ডের বিচার হয়নি। তারা বঙ্গবন্ধু সঙ্গে ছিল, বঙ্গবন্ধুর আলোতে আলোকিত ছিল। জাতীয় পার্টি করেছে, পরে গণতন্ত্রের লেবাস পড়ে বিনপিতে চলে গিয়েছিল। মওদুদরা হলেন এদেশের ‘জিনিয়াস ইভিল’ শয়তান।’

তিনি বলেন, এই শয়তানদের জন্য দেশটা পিছিয়ে গেছে। যে আদর্শে দেশ স্বাধীন হয়েছিল, সেটি অব্যাহত থাকলে দেশ এগিয়ে যেত, সেজন্য আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় থাকতে হবে তা নয়। সকল মানুষের জন্য ন্যায়ভিত্তিক সমাজ গড়ে তুলতে হবে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, এবারের ঈদ খুব সুন্দর হয়েছে আনন্দের হয়েছে। যদিও যোগাযোগ ব্যবস্থা একটু অসুবিধা করেছে। আগামীতে এ অসুবিধা থাকবেনা। বাংলাদেশের মানুষ দুর্যোগ দুর্বিপাক মেকাবেলা করে মাথা উচু করে বেচেঁ থাকার জাতি।

এবারের বন্যা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এবারের বন্যায় ফসলের তেমন ক্ষয়ক্ষতি হয়নি। তবে আমনের যে লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে তা অর্জন হবে। কৃষকদের বিনামুল্যে বীজ সারসহ অন্যান্য কৃষি উপকরণ দেয়া হবে। পানি নামার সাথে সাথে যাতে করে কৃষক চাষাবাদ করতে পারে সে জন্য সব জেলায় ইতোমধ্যে মাসকালাই বীজ পাঠানো হয়েছে।

মন্ত্রী বলেন, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ইতোমধ্যে ১২০ কোটি টাকা প্রণোদনা বাবদ বরাদ্ধ রাখা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন প্রয়োজনে আরও বেশি দেয়া হবে।


জুমবাংলানিউজ/এইচএম


আপনি আরও যা পড়তে পারেন