অর্থনীতি-ব্যবসা জাতীয় স্লাইডার

‘ঢাকাকে তিলোত্তমা ও পরিচ্ছন্ন নগরীতে রূপান্তরের চেষ্টা করছে সরকার’

জুমবাংলা ডেস্ক : ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন এলাকায় সরকারি জায়গায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা বস্তি, দোকান উচ্ছেদ করে এই মহানগরীকে তিলোত্তমা ও পরিচ্ছন্ন নগরীতে রূপান্তরের চেষ্টা করছে সরকার। সম্প্রতি জাতীয় সংসদকে এ তথ্য জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম।

ঢাকা-১১ এর সংসদ সদস্য এ কে এম রহমতুল্লাহ’র এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী সংসদকে জানান, মহানগরীকে তিলোত্তমা নগরীতে রূপান্তরের জন্য রাজউক হাতিরঝিল সমন্বিত উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন হয়েছে। গুলশান, বনানী, বারিধারা ও উত্তরা লেক উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে। কুড়িল পূর্বাচল লিংক রোডের উভয় পাশে বালু নদী পর্যন্ত ১০০ ফুট খাল খনন প্রকল্প চলমান রয়েছে।

শ ম রেজাউল করিম জানান, ২০১৭ সালে মিরপুরের পাইকপাড়ায় ১৪ একর জমি অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে উচ্ছেদ করে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারিদের জন্য বহুতল ভবন নির্মাণ করা হচ্ছে।

মন্ত্রী দাবি করেন, রাজউকের আওতাভুক্ত বিভিন্ন প্রকল্প এলাকায় সরকারি জায়গায় অবৈধভাবে গড়ে ওঠা কোনো বস্তি, দোকান, রিকশা গ্যারেজ নেই। তবে কখনও কোন বরাদ্দ-গ্রহীতার প্লটে এ ধরনের ভাসমান দোকান, রিকশা গ্যারেজ স্থাপিত হলে নিয়মিত উচ্ছেদ অভিযান ও ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সেগুলো অপসারণ করা হয়। এটা রাজউকের একটি রুটিন ওয়ার্ক।

মহিলা আসন-১৮ এর সংসদ সদস্য সৈয়দা রুবিনা আক্তারের প্রশ্নের জবাবে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রী সংসদকে আরও জানান, সারাদেশে জেলা ও উপজেলায় স্বপ্ল আয়ের মানুষের আবাসিক সমস্যা সমাধানের জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। এ লক্ষ্যে সরকার দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রকল্প গ্রহণ করেছে। চাহিদার প্রেক্ষিতে সম্ভাব্যতা যাচাই করে আরো প্রকল্প গ্রহণ করা হবে।


জুমবাংলানিউজ/পিএম




আপনি আরও যা পড়তে পারেন



Add Comment

Click here to post a comment