আন্তর্জাতিক

পদ হারাচ্ছেন প্রিন্স সালমান!

image-89614-1570181593আন্তর্জাতিক ডেস্ক : মুকুট হারাতে পারেন সৌদি ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমান। গত কয়েকদিন ধরে বেশ কয়েকটি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে এমন খবর প্রচারিত হয়েছে। যেখানে দাবি করা হয় এরই মধ্যে মোহাম্মদ বিন সালমানের বিকল্প খুঁজছে রাজপরিবার। বেশ কিছু ঘটনার কারণে সৌদির রাজপরিবারে ক্রাউন প্রিন্সকে নিয়ে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। বিশেষ করে গত মাসে সৌদির দু’টি গুরুত্বপূর্ণ তেলক্ষেত্রে হামলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাজপরিবারের বেশ কিছু সদস্য এবং ব্যবসায়িক মিত্র ক্রাউন প্রিন্সের নেতৃত্বের প্রতি হতাশা প্রকাশ করেছেন।

রাজপরিবার সম্পর্কিত অভিজাত পরিষদের একটি সূত্র জানায়, যুবরাজের নেতৃত্ব নিয়ে এখানে প্রচুর অসন্তোষ রয়েছে। তাদের প্রশ্ন- এটি কীভাবে সম্ভব যে হামলাটি কোথা থেকে হয়েছে, তা শনাক্ত করতে পারেননি তারা?

সূত্রটি আরো জানায়, অভিজাত পরিষদের কয়েকজন বলছেন- যুবরাজের প্রতি তাদের কোনো আত্মবিশ্বাস নেই।

আরো চারটি সূত্র ও জ্যেষ্ঠ কূটনৈতিকের কাছ থেকে একই কথার পুনরাবৃত্তি শোনা গেছে। তবে এরপরও সৌদি আরবে যুবরাজের ঘোর সমর্থক রয়েছেন।

যুবরাজের অনুগত চক্রের একটি সূত্র জানায়, একজন সম্ভাব্য শাসক হিসেবে সাম্প্রতিক ঘটনায় ব্যক্তিগতভাবে তার ওপর ক্ষতিকর কোনো প্রভাব পড়বে না। কারণ মধ্যপ্রাচ্যে তিনি ইরানি প্রভাব বিস্তার রোধ করতে চাচ্ছেন। এটি অবশ্যই দেশপ্রেমের ইস্যু। কাজেই তিনি ঝুঁকিতে পড়বেন না। অন্তত যতদিন তার বাবা জীবিত থাকবেন।

তবে গুঞ্জনের মধ্যে সালমানের বড় ভাই প্রিন্স আহমেদ বিন আবদুল আজিজকে (৭৭) তার বিকল্প হিসেবে দেখছেন রাজপরিবারের বেশ কিছু সদস্য।

প্রসঙ্গত, সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের পর সৌদি রাজতন্ত্রের পরবর্তী উত্তরাধিকারী বিবেচনা করা হয় ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন সালমানকে। রাজপরিবারে বর্তমানে সবচেয়ে ক্ষমতাশীল ব্যক্তি মোহাম্মদ বিন সালমান। দেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে তিনিই সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন। তার কারণেই কট্টরপন্থি সৌদিতে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। নারীদের ওপর থেকে বিভিন্ন কঠোর বিধি-নিষেধ তুলে নেয়া হচ্ছে।

এমনকি নারীরা এখন মাঠে বসে বিভিন্ন খেলাধুলাও উপভোগ করবে পারবেন। তাদের পোশাকের ওপরও শিথিলতা আনা হয়েছে। কর্মক্ষেত্রেও নারীদের অংশগ্রহণ বাড়ানো হচ্ছে। ফলে খুব অল্প সময়েই সৌদির তরুণ-তরুণীদের কাছে একজন প্রিয় নেতা হয়ে উঠেছেন মোহাম্মদ বিন সালমান। কিন্তু এতোকিছুর পরেও কিছু কিছু ক্ষেত্রে বিতর্কিত তিনি।


জুমবাংলানিউজ/এসআর


আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment



সর্বশেষ সংবাদ