অন্যরকম খবর গসিপ

পরিবারের সব ভাইয়ের একজনই বউ সেখানে

Dark Mode

2z00mনারী বা পুরুষের একাধিক যৌন সম্পর্ক তাদের মধ্যে। কারো মতে এটা খুবই স্বাভাবিক। কারো মতে, একাধিক যৌন সম্পর্কে লিপ্ত হওয়া ঘোর অন্যায়। বিশেষ করে আমাদের সমাজে এটাকে অন্যায় হিসেবেই দেখা হয়।

অথচ ভারতের কিছু অঞ্চলে আজও জীবিত রয়েছেন ‘দ্রৌপদী’রা! সেখানে পলিঅ্যান্ড্রিই হলো সমাজের রীতি এবং সেই রীতি পালন করতে ঘটা করে এক তরুণীর সঙ্গে একই পরিবারের সমস্ত ভাইদের বিয়ে দেওয়া হয়!

হিমাচল প্রদেশের কিন্নরে এ ধরনের চল রয়েছে। কিন্নর ইন্দো-তিব্বতের সীমানার কাছাকাছি জেলা। যে পলিঅ্যান্ড্রি বা নারীদের বহুবিবাহের কথা বলা হচ্ছে, তা চালু রয়েছে সেখানে। আজকের দিনেও সেখানে রয়েছেন দ্রৌপদীরা।

মহাভারত অনুসারে, ১৩ বছরের জন্য রাজ্য থেকে নির্বাসিত হয়েছিলেন পাণ্ডবরা। স্থানীয়দের বিশ্বাস, তারা নাকি তখন এই কিন্নরে লুকিয়ে ছিলেন। সেই থেকেই নাকি এই অঞ্চলে নারীদের বহু বিবাহের প্রচলন।

ওই অঞ্চলের বহু মানুষ নিজেদের পাণ্ডবদের বংশধর বলে দাবি করেন। যদিও এ নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। কারণ ইতিহাসবিদদের মতে, পাণ্ডবদের অনেক আগে থেকেই কিন্নরিদের উল্লেখ রয়েছে মহাভারতে।

সেখানে একটি পরিবারে বিয়ে হয়ে আসা তরুণীকে একই সঙ্গে স্বামীর অন্য ভাইদেরও বিয়ে করতে হয়। বিয়ের পর যত সন্তানের জন্ম ওই নারী দেবেন, তাদের প্রকৃত বাবার পরিচয়ের জন্য পুরো পরিবার ওই তরুণীর কথায় ভরসা রাখে। তবে প্রকৃত বাবা যিনিই হন না কেন, প্রতিটা সন্তান ‘বড়ভাইকে’ বাবা সম্বোধন করবে এবং বাকিদের চাচা। সেখানকার রীতি এমনটাই।



জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর