ক্যাম্পাস

পরীক্ষার আগের দিন ফাঁস দিয়ে রাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

rabiজুমবাংলা ডেস্ক : রাত পোহালেই শুরু হবে বিভাগের ৩য় বর্ষের চূড়ান্ত পরীক্ষা। এর আগেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন ফিরোজ কবির নামের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) এক শিক্ষার্থী।

সোমবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন আমজাদের মোড় এলাকার রাজু ছাত্রাবাস নামের একটি মেস থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে মতিহার থানা পুলিশ। প্রাথমিকভাবে এটিকে আত্মহত্যা বলে জানিয়েছেন তারা।

ফিরোজ কবির বিশ্ববিদ্যালয়ের ফলিত গণিত বিভাগের তৃতীয় বর্ষের (২০১৬-১৭ সেশনে) শিক্ষার্থী ছিলেন। তার বাড়ি গাইবান্ধা জেলায়।

মেসে অবস্থানকারী শিক্ষার্থীরা জানান, অনেক সময় ধরে রুমের দরজা খুলছিল না ফিরোজ। অনেক ডাকাডাকির পর উপায় না দেখে মতিহার থানা পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়। পরে পুলিশ এসে রুমের দরজা ভেঙে তার ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে।

মতিহার থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাফিজুর রহমান বলেন, রুমের মধ্যে ফ্যানের সঙ্গে দড়ি দিয়ে ফাঁস দেয়া এক শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহটি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. লুৎফর রহমান বলেন, ঘটনাটি শুনে আমি ঘটনাস্থলে যাই। ছেলেটির পরিবারের সঙ্গে কথা হয়েছে। আগামীকাল মঙ্গলবার সকালে তাদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে।

সহপাঠী রেজাউল করিম বলেন, সকাল সাড়ে ৯টায় তার সঙ্গে সর্বশেষ কথা হয়। আগামীকাল পরীক্ষা শুরু হবে কিন্তু ও বলেছিল- পরীক্ষা দেবে না। তখন ভাবেছিলাম, হয়তো মজা করে বলছে। এমন একটা ঘটনা ঘটাবে বিশ্বাসই করতে পারছি না।

ফিরোজের বন্ধু জহুরুল ইসলাম ইমন জানান, বিভাগের মেধাতালিকায় ২য় স্থানে আছে সে। পড়ালেখা নিয়ে ব্যস্ত থাকতো। তেমন কারো সঙ্গে মিশতো না।



জুমবাংলানিউজ/এসআই

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ