অর্থনীতি-ব্যবসা জাতীয় স্লাইডার

বাজারে মুরগি ও ডিমের দাম চড়া, পেঁয়াজ স্থিতিশীল

imজুমবাংলা ডেস্ক : রাজধানীর কাঁচাবাজারে মুরগি ও ডিমের দাম এখনও চড়া, অন্যদিকে পেঁয়াজের দাম স্থিতিশীল রয়েছে। তবে সবজির দাম গত সপ্তাহের তুলনায় কিছুটা কমেছে। আজ শুক্রবার (০৪অক্টোবর) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, হাতিরপুল, সেগুনবাগিচাসহ বেশ কয়েকটি বাজার ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বাজার ঘুরে দেখা গেছে, রাজধানীর পাইকারি বাজার গুলো পেঁয়াজের দাম আর কমেনি। খুচরা বাজারেও দাম আগের মতোই আছে। বাজারে দেশি পেঁয়াজ ৭০-৭৫ টাকা, ভারতীয় পেঁয়াজ ৬৫-৭০ টাকা ও মিয়ানমারের পেঁয়াজ ৬০ টাকায় বিক্রি হয়।

ঢাকার কয়েকটি খুচরা বাজার ঘুরে দেখা যায়, দেশি পেঁয়াজ প্রতি কেজি ১০০ টাকা ও ভারতীয় পেঁয়াজ ৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে, যা সোমবারের চেয়ে অবশ্য কেজিপ্রতি ১০ টাকার মতো কম।

পেঁয়াজের পাইকারি ব্যবসায়ীরা বলছেন, সামনে মিসর ও তুরস্কের পেঁয়াজ এলে দাম আরও কিছুটা কমতে পারে। তিনি জানান, পাইকারি বাজারে রসুন ও আদার দাম কমেছে। সাম্প্রতিক কালে চীনা আদা প্রতি কেজি ১৪০ টাকা পর্যন্ত উঠেছিল। সেটা এখন ১১০-১১২ টাকায় নেমেছে। অন্যদিকে চীনা রসুন উঠেছিল ১৬০ টাকায়, যা এখন বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকার মধ্যে।

খুচরা বাজারে চীনা রসুন প্রতি কেজি ১৪০ টাকা ও আদা ১৪০-১৫০ টাকায় বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।

এদিকে বাজারে ডিমের দামও চড়া। সাধারণত প্রতি ডজন ডিমের দাম ৯০ থেকে ১০০ টাকার মধ্যে থাকে। কিন্তু ফার্মের মুরগির ডিম এখন প্রতি ডজন ১১৫ থেকে ১২০ টাকায় বিক্রি করছেন বিক্রেতারা।

বেড়েছে ফার্মের সোনালিকা জাতের মুরগির (পাকিস্তানি নামে পরিচিত) দামও। গত সপ্তাহে এ মুরগির দাম প্রতি কেজি ২৩০-২৪০ টাকার মধ্যে ছিল। গতকাল কারওয়ান বাজারেই তা ২৮০ টাকা চাইতে দেখা যায় বিক্রেতাদের। অন্যদিকে ব্রয়লার মুরগির দাম ১০ টাকার মতো বেড়ে প্রতি কেজি ১৪০-১৪৫ টাকায় উঠেছে।



জুমবাংলানিউজ/পিএম




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ