খুলনা জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ

বিএসএফের পিটুনিতে প্রাণ গেল বাংলাদেশির

জুমবাংলা ডেস্ক : চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার ঠাকুরপুর সীমান্তে আবদুল্লাহ মণ্ডল (৪৬) নামে এক বাংলাদেশিকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে বিএসএফের বিরুদ্ধে। নিহত আবদুল্লাহ মণ্ডল উপজেলার ঠাকুরপুর গ্রামের মৃত গোলাম রসুল মণ্ডলের ছেলে।

বুধবার (১৪ আগস্ট) ভোরে সীমান্ত অতিক্রম করে গরু আনতে গেলে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী তাকে পিটিয়ে হত্যা করে বলে অভিযোগ স্থানীয় গ্রামবাসীর।

তবে বিজিবির পক্ষ থেকে বলা হয়, ঘটনাটি তদন্ত করা হচ্ছে। দুপুরে দামুড়হুদা থানা পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা মর্গে পাঠিয়েছে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য সাখার উদ্দীন জানান, বুধবার ভোরে আবদুল্লাহসহ ৩-৪ জন বাংলাদেশি ঠাকুরপুর সীমান্তে দিয়ে গরু আনতে যায়।

তারা সীমান্তের ৮৯-৯০ মেইন পিলারের কাছ দিয়ে প্রবেশ করলে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী-বিএসএফের মালুয়াপাড়া ক্যাম্পের সদস্যরা তাদের ধাওয়া দেয়। এ সময় অপর তিন সদস্য পালিয়ে এলেও বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে আবদুল্লাহ।

নিহত আবদুল্লাহর ভাই হাবিবুর রহমানের অভিযোগ, বিএসএফের হাতে ধরা পড়ার পর তাকে পিটিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়। হত্যার পর তার লাশ ফেলে রেখে যাওয়া হয় সীমান্তের জিরো পয়েন্টে। খবর পেয়ে সকালে গ্রামবাসী লাশ নিয়ে আসে।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস জানান, আবদুল্লাহর শরীরের বেশ কয়েকটি স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা-৬ বিজিবির পরিচালক লে. কর্নেল সাজ্জাদ সরোয়ার জানান, ঠাকুরপুর সীমান্তে এক বাংলাদেশি নাগরিকের লাশ উদ্ধারের খবর আমরা পেয়েছি।



জুমবাংলানিউজ/এএসএমওআই

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন