খেলাধুলা

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের হার এখনো পোড়াচ্ছে শাস্ত্রিকে

স্পোর্টস ডেস্ক: গেল সপ্তাহে ২৬ মাসের জন্য পুনরায় রবি শাস্ত্রীকে ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ হিসেবে নিয়োগ দেন উপদেষ্টা কমিটি। শাস্ত্রীর প্রতিন্দ্বন্দি হিসেবে ভারতের কোচ হবার দৌঁড়ে ছিলেন মাইক হেসন ও টম মুডি। কিন্তু অভিজ্ঞতা ও খেলোয়াড়দের সাথে বোঝাপড়াটা ভালো থাকায় ভারতের কোচের দায়িত্ব পেয়ে যান শাস্ত্রী। তার অধীনে তিন ফরম্যাটেই ভালো করছে ভারত। শুধুমাত্র ২০১৯ বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে সাফল্যে রঙ্গীন হতে পারেনি টিম ইন্ডিয়া। নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয় ভারতকে। খবর বাসসের।

ম্যানচেস্টারের ঐ সেমিফাইনালে ২৪০ রানের টার্গেটে ব্যাট হাতে নেমে ২২১ রানেই গুটিয়ে যায় ভারত। ফলে ১৮ রানে ম্যাচ জিতে নেয় নিউজিল্যান্ড। লিগ পর্বে নয় ম্যাচে অংশ নিয়ে সর্বোচ্চ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে ছিলো ভারত। সেমিফাইনালে নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে ফাইনাল খেলার পথে ফেভারিটই ছিলো তারা। কিন্তু নক আউট পর্বে নিউজিল্যান্ডের কাছে হার মানে কিউইরা।

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে এ হারটিকেই কোচিং ক্যারিয়ারের সবচেয়ে বড় হতাশার বলে মনে করেন টানা দ্বিতীয়বারের মত ভারতের দায়িত্ব পায় শাস্ত্রী। সেমিফাইনালে জবাব দিতে নিজেদের ইনিংসের প্রথম কয়েক ওভারে দ্রুত উইকেট হারিয়ে ভারত ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় মনে করেন তিনি।

শাস্ত্রী বলেন, ‘বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে হেরে যাওয়া অনেক বড় হতাশার। ব্যাটিং-এ প্রথম ৩০ মিনিটে সবকিছু তছনছ হয়ে গেছে। পুরো আসরেই আমরা ভালো খেলেছিলাম। অন্যান্য দলের চাইতে আমরাই বেশি ম্যাচ জিতেছিলাম, আমরা টেবিলের শীর্ষে ছিলাম এবং এটি বলে দেয় আমরাই প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছি। কিন্তু এটি খেলা, একটি খারাপ দিন, একটি খারাপ সেশনের কারণে আমাদের করার কিছু ছিলো না।’

ভবিষ্যতে শাস্ত্রীর জন্য অনেক বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। দু’টি টি-২০ বিশ্বকাপ রয়েছে। ২০২০ ও ২০২১ সালে। পাশাপাশি আছে বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপ। তাই এই বড় বড় আসর জয় করা শাস্ত্রী ও কোহলির জন্য অন্যতম বড় লক্ষ্য। শাস্ত্রী বলেন, ‘আগামী দু’বছর দু’টি টি-২০ টুর্নামেন্ট রয়েছে, ২০২০ ও ২০২১ সালে। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপও শুরু হয়েছে। যেগুলোর গুরুত্ব অনেক বেশি। আমরা খুবই ভালো দল এবং র‌্যাংকিং-এর শীর্ষে রয়েছি। তবে আমাদের আরও ভালো করতে হবে। টি-২০তে আমাদের নতুন দৃষ্টিভঙ্গি নেওয়া উচিত ও আমাদের যে প্রতিভা রয়েছে তা একীভূত করতে হবে।’


জুমবাংলানিউজ/এসবি


আপনি আরও যা পড়তে পারেন