জাতীয়

বিয়ের দুই মাসের মাথায় নববধূকে পিটিয়ে হ’ত্যা

জুমবাংলা ডেস্ক : যৌতুকের জন্য শোভা রাজমিন হুসনা (২০) নামের এক নববধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে তার স্বামীর বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার রাতে গাজীপুর মহানগরীর উত্তর ভুরুলিয়া তালুকদার পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় নিহতের স্বামী রবিউল ইসলামকে (২৭) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

নিহত শোভা মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার বিশ্বাসপাড়া এলাকার মো. আবদুল হালিমের মেয়ে। আবদুল হালিম গাংনী উপজেলা জাতীয় পার্টির (জেপি) সভাপতি এবং কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক।

নিহত শোভার বাবা আবদুল হালিম জানান, গত ১২ জুলাই মাগুরার সদরের শেহেলডাঙ্গা গ্রামের সোহরাব হোসেনের ছেলে রবিউল ইসলামের সঙ্গে শোভার বিয়ে হয়। বিয়ের আগে থেকেই শোভা গাজীপুরে বাসা ভাড়া নিয়ে ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (ডুয়েট) ভর্তির জন্য কোচিং করছিল। বিয়ের পর শোভা স্বামী রবিউলের সঙ্গে ডুয়েটের পাশে উত্তর ভুরুলিয়া এলাকার মোশারফ হোসেনের ফ্ল্যাটে সাবলেটে ওঠে।

তিনি আরও জানান, বিয়ের কিছুদিন পর থেকে রবিউল শোভাকে যৌতুকের ৩০ লাখ টাকা এনে দেয়ার জন্য মারপিট করতে থাকে। মঙ্গলবার রাত পৌনে ১২টায় শোভা ফোন করে তার মাকে জানায়, যৌতুকের জন্য রবিউল তাকে বেদম মারধর করেছে। মেয়ের কথা শুনে তার মা তাকে রাতটুকু সহ্য করে সকালে চলে আসতে বলেন। এর কিছুক্ষণ পর থেকে শোভার মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। পরে ভোর ৪টার দিকে বাসার মালিকের স্ত্রী ফোন করে শোভা অসুস্থ জানিয়ে তাদের দ্রুত শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসতে বলেন। আজ (বুধবার) দুপুর ১২টার দিকে হাসপাতালে এসে মেয়ের লাশ দেখতে পাই।

গাজীপুর সদর থানার এসআই রিয়াজ উদ্দিন জানান, রবিউল ভোররাত ৪টায় অচেতন অবস্থায় শোভাকে শহীদ তাজউদ্দীন হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শোভার গলা ও হাতে কালচে দাগ রয়েছে। স্বজনদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শোভার স্বামীকে আটক করা হয়েছে।


জুমবাংলানিউজ/এসএস




আপনি আরও যা পড়তে পারেন



Add Comment

Click here to post a comment