আন্তর্জাতিক স্লাইডার

ভারতের মণিপুর রাজ্যের স্বাধীনতা ঘোষণা, অস্থায়ী সরকার গঠন

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারত থেকে আলাদা হওয়ার ঘোষণা দিয়েছে মণিপুরি রাজ্যের বিদ্রোহী নেতারা। আর এর জন্য মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) ব্রিটেনে তারা একটি অস্থায়ী সরকারের ঘোষণা দিয়েছে। খবর জিও নিউজ, আল জাজিরা, দ্য হিন্দু, হিন্দুস্থান টাইমস, বিজনেস রেকর্ডার।

মনিপুর
লন্ডন থেকে অস্থায়ী সরকারের ঘোষণা দেওয়া হয়, ছবি: সংগৃৃহীত

অস্থায়ী সরকারে ইয়ামবেন বিরেনকে মুখ্যমন্ত্রী এবং নারেংবাম সমরজিৎকে পররাষ্ট্র ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া রাজ্যের রাজা লিসেম্বা সানাজাওবা’র পক্ষে তারা স্বাধীনতা ঘোষণা করেন।

এ বিষয়ে লন্ডনে সাংবাদিকদের উদ্দেশে নারেংবাম সমরজিৎ বলেন, ‘আজকে থেকে আমরা সেখানে (মণিপুর) অস্থায়ী সরকার পরিচালনা করব। আমরা বিভিন্ন দেশের সহযোগিতা চাইব, যাতে জাতিসংঘের সদস্য হতে পারি। আর আমরা আশাবাদী অনেক দেশই আমাদের সমর্থন দেবে।

রাজ্যের জনগণের ওপর ভারতীয় সরকারের আচরণ সম্পর্কে সমরজিৎ বলেন, ‘আমরা সেখানে মুক্ত নই এবং আমাদের ইতিহাস ধ্বংস হতে চলেছে। আমাদের সংস্কৃতি বিলুপ্তির পথে। তাই আমরা জাতিসংঘকে জানাতে চাই, মণিপুরে বসবাসকারীও মানুষ।’

তবে এই বিষয়ে লন্ডনে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাস কর্তৃক এখনো কোনো মন্তব্য করেনি।

উল্লেখ্য, ১৯৪৭ সালে ব্রিটেন থেকে স্বাধীনতা লাভ করে মনিপুর। কিন্তু এর দুই বছর পরেই তারা ভারতের সঙ্গে একত্রিত হয়ে যায়। যার ফলে কয়েক দশক ধরে স্বাধীনতার জন্য লড়াই চালিয়ে আসছেন তারা।

ভারতের সেভেন সিস্টার্সের আওতাভুক্ত মণিপুরি রাজ্য। যেখানে প্রায় ২৮ লাখ মানুষের বসবাস। আর এটি ভারতের অন্যতম ক্ষুদ্র রাজ্য বলে জানা যায়। রাজ্যটিতে মেইটি, নাগা, কুকি এবং পাঙ্গাল সম্প্রদায়ের লোকজন বসবাস করে।



জুমবাংলানিউজ/এসওআর




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment