বিনোদন

বিয়ের প্রথম দিকে মাঝরাতে উঠে নিককে দেখতেন প্রিয়ঙ্কা

15বিনোদন ডেস্ক : গত বছর রাজকীয় কায়দায় গাঁটছড়া বেঁঝেছেন প্রিয়ঙ্কা চোপড়া ও নিক জোনাস। এই মুহূর্তে দুজনে বেশ সুখেই সংসার করছেন। কিন্তু জানেন কি, বিয়ের প্রথম দিকে প্রতি রাতে ঘুম থেকে উঠে নিককে দেখতেন প্রিয়ঙ্কা। দেখতেন, নিক ঠিক আছেন কি না।

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের কাছে প্রিয়ঙ্কা জানান, নিক ডায়াবেটিস টাইপ ১-এ আক্রান্ত। বিয়ের প্রথম দিকে প্রত্যেক মাঝরাতে ঘুম থেকে উঠে নিক ঠিক আছেন কি না তা দেখতেন তিনি। কিন্তু নিজের এই রোগকে ভাল ভাবেই নিয়ন্ত্রণেই রাখেন নিক।

প্রিয়ঙ্কা বলছেন, আমাদের যখন প্রথম বিয়ে হয় তখন আমি এই ব্যাপারটা বিশ্বাস করতাম না যে, নিক সত্যিই ঘুমের মধ্যেও ওর সুগার লেভেল কমে গেলে বুঝতে পারে। কিন্তু ও খুব নিয়ম মাফিক চলে। ও ঘুমের মাঝেও বুঝতে পারে।

টাইপ ১ ডায়াবিটিসের জেরে শরীরে ইনসুলিন তৈরি হওয়ায় সমস্যা হয়। ফলে শরীর ঠিক রাখতে ওষুধের উপরেই নির্ভর করতে হয়। তাই প্রিয়ঙ্কা নিকের স্বাস্থ্য নিয়ে প্রথম দিকে বেশ খানিকটা চিন্তিতই থাকতেন আর মাঝরাতে ঘুম থেকে উঠে দেখতেন তিনি ঠিক আছেন কি না।

মাত্র ১৩ বছর বয়সে টাইপ ১ ডায়াবিটিস ধরা পড়ে নিকের। এই বিষয়ে প্রিয়ঙ্কা বলছেন, অনেক ছোট থেকেই ডায়াবিটিসের সঙ্গে লড়ছে নিক। তাই ও কড়া নিয়ম মেনে চলতে জানে। ও জানে কখন ঠিক কোনটা করা উচিত। ডায়াবিটিসের জন্য ও কোনও কিছুর সঙ্গে আপোশ করেনি। ও খেলাধূলার সঙ্গে যুক্ত থেকেছে। ও ঘুরে বেড়িয়েছে। ও অসাধারণ জীবনযাপন করে, যা দেখে সত্যি শেখা যায়।

তিনি আরও বলছেন, টাইপ ১ ডায়াবিটিস ধরা পড়া মানেই জীবন যাপন বদলে যাওয়া নয়। স্বাভাবিক ভাবেই বাঁচা যায়। আমাকে বিষয়টা অনুপ্রেরণা দেয়।

নিকও এক সংবাদমাধ্যমের কাছে বলেছিলেন, আমি আমার বাবা-মাকে শুধু জিজ্ঞাসা করতাম যে সব ঠিক হয়ে যাবে কি না। আমি শুধু ভাবতাম আমি জীবনে যা যা করতে চাই, তা করতে পারব কি না। আমি খুব ভয় পেতাম। আমার কাছে এটা একটা বড় পরিবর্তন ছিল।

প্রসঙ্গত, এই মুহূর্তে প্রিয়ঙ্কা তাঁর আসন্ন ছবি দ্য স্কাই ইজ পিঙ্কের প্রচার নিয়ে ব্যস্ত।



জুমবাংলানিউজ/এসআই




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment