চট্টগ্রাম বিভাগীয় সংবাদ

রোহিঙ্গা ডাকাত ধরতে ড্রোন উড়িয়ে র‌্যাবের অভিযান

Dark Mode

wv
রোহিঙ্গা ডাকাত ধরতে ড্রোন উড়িয়ে অভিযান পরিচালনা করছে র‌্যাব। ছবি : সংগৃহীত
জুমবাংলা ডেস্ক : রোহিঙ্গা ক্যাম্প ঘিরে সক্রিয় ডাকাতদের মূলহোতা রোহিঙ্গা ডাকাত আবদুল হাকিম ধরতে ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ি এলাকায় ড্রোন দিয়ে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব।

শুক্রবার (২৫ অক্টোবর) সকাল ৭ টায় থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত কক্সবাজারের টেকনাফের বাহারছড়া টইগ্যা পাহাড়সহ বেশ কয়েকটি দূর্ঘম পাহাড়ে এ অভিযান চালায় র‌্যাব-১৫।

এ সময় ড্রোন উড়িয়ে বিভিন্ন পাহাড়ে ডাকাতদের আস্তানার তথ্য সংগ্রহ করেন র‌্যাব সদস্যরা। পরে পাহাড়ে ডাকাদের কয়েকটি স্থানেও অভিযান চালানো হয়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যান তারা। তবে ডাকাতদের আস্তানার তথ্যর সন্ধান পান তারা। তবে তদন্তের স্বার্থে এসব তথ্য এখন বলা যাচ্ছেনা বলে জানিয়েছেন অভিযান পরিচালনাকারী দলেলর প্রধান ,র‌্যাব-১৫ অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ।

এই অভিযানে আরও উপস্থিত ছিলেন- র‌্যাব-১৫ এর উপ-অধিনায়ক মেজর রবিউল হাসান, সিপিএসসি কোম্পানি কমান্ডার মেজর মেহেদী হাসান, সিপিএসসি স্কোয়াড কমান্ডার এডিশনাল এসপি বিমান চন্দ্র কর্মকার, সিপিসি-১ কোম্পানি কমান্ডার লেফটেন্যান্ট মির্জা শাহেদ মাহতাব (এক্স), বিএন, সিপিসি-২ কোম্পানি কমান্ডার এএসপি শাহ আলমস অনেকে।

wa

র‌্যাব জানায়, ক্যাম্প সংলগ্ন পাহাড়ে ডাকাদের সক্রিয় সদস্যরা সাধারণ রোহিঙ্গা ও স্থানীয়দের জিম্মি করে প্রায়ই লুটপাট চালায়। এ ছাড়া ডাকাত দলের কোনো কোনো সদস্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পরিচয়ে রোহিঙ্গাদের বাসায় ঢুকে মালপত্র লুট ও অপহরনের অভিযোগ রয়েছে। ক্যাম্পেরর ভেতর বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও হামলা চালায় তারা। গত ২০ অক্টোবর রাতে টেকনাফ বাহাছড়া শীলখালী মাঠপাড়া এলাকার একটি বাড়ি থেকে দুই কিশোরিকে তুলে নিয়ে রোহিঙ্গা ডাকাত হাকিম ও তার সহযোগীরা। পরে দুই দিন পর তাদের উদ্ধার করা হয়।

অভিযান শেষে র‌্যাব-১৫ এর অধিনায়ক উইং কমান্ডার আজিম আহমেদ বলেন, ‘এই পাহাড়ি এলাকায় বর্তমানে রোহিঙ্গা হাকিম বাহিনীর অবস্থানের খবর রয়েছে। তারা পাহাড়ি এলাকায় আস্তানায় গড়ে তুলে অপহরণ, খুন ও ধর্ষণের মত অপরাধ চালিয়ে যাচ্ছে। এই হাকিম বাহিনীর গ্রুপকে ধরার জন্য পাহাড়ে প্রাথমিক ভাবে আমরা অভিযান পরিচালনা করলাম।’

তিনি বলেন, ‘এবার সর্ব প্রথম র‌্যাব হেড কোয়ার্টার থেকে ড্রোন এনে পাহাড়ি ড্রোন উড়িয়ে তাদের আস্তানার খোঁজার চেষ্টা করেছি।’

কোনো সন্ত্রাসী বাহিনীকে ছাড় দেওয়া হবেনা উল্লেখ করে র‌্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘প্রয়োজনে দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় র‌্যাব হেলিকপ্টারের মাধ্যমে অভিযান পরিচালনা করবে।’ সূত্র : আমাদের সময়।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর