গাজীপুর ঢাকা বিভাগীয় সংবাদ

শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পরিচয় দিয়ে মুঠোফোনে টাকা দাবি করত রেজাউল

sripur-

গাজীপুর প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান হিসেবে নিজেকে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জনের মুঠোফোনে টাকা দাবির অভিযোগে রেজাউল করিম মোজাম্মেল (৪০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।

গ্রেফতার রেজাউল করিম মোজাম্মেল উপজেলার গোসিংগা ইউনিয়নের পটকা গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে।

বুধবার দিবাগত রাতে পৌর শহর থেকে তাকে আটক করা হয়। মুঠোফোনে প্রতারণার অভিযোগে শামীমা আখতার নামের এক ব্যবসায়ীর দায়ের করা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শহীদুল ইসলাম মোল্লা জানান, মোজাম্মেল নিজেকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান হিসেবে পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন জনের কাছে টাকা দাবি করে আসছিলেন। এছাড়াও শ্রীপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পরিচয়ে শ্রীপুরের ঠিকাদার অ্যাডভোকেট তোফাজ্জল হোসেন শাহীন, শ্রীপুর বাজারের সুমাইয়া এন্টারপ্রাইজের মালিক সোহেল রানা, মতিনুর বেগম মালা ও রোজলিনা হকসহ কয়েকজনের কাছে বিকাশের মাধ্যমে বিভিন্ন অংকের টাকা দাবি করে আসছিল একটি চক্র। এমন অভিযোগ অ্যাডভোকেট শামসুল আলমকে জানানো হলে তিনি শ্রীপুর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেন।

গত কয়েকদিন আগে শ্রীপুর কলেজ পাড়ার স্মার্ট ফ্যামিলি মলের স্বত্বাধিকারী শামীমা আখতারের কাছে প্রথমে শ্রীপুরে আওয়ামী লীগের জনসভা আছে বলে ২ হাজার টাকা নেন মোজাম্মেল। পরে আরও ১০ হাজার টাকা দাবি করলে তিনি (শামীমা) বিষয়টি উপজেলা চেয়ারম্যানকে অবহিত করেন। এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান তাকে বিষয়টি থানায় জানানোর অনুরোধ করেন। পরে শামীম আখতার শ্রীপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। ওই অভিযোগের পর প্রযুক্তি ব্যবহার করে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত মোজাম্মেল হোসেনকে আটক করা হয়। তিনি মাদক ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে শ্রীপুর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট শামসুল আলম প্রধান জানান, ৫০ বছরের দীর্ঘ রাজনীতিতে সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছি। এছাড়াও আমি গাজীপুর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। কখনও কোনো চাঁদাবাজি করি নাই। আমার সুনাম নষ্ট করতে কোনো কুচক্রী মহল এমন ষড়যন্ত্র করছে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, গ্রেফতার মোজাম্মেল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের পরিচয়ে টাকা আদায়ের কথা স্বীকার করেছেন। তার বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির একটি মামলা হয়েছে।





সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ