জাতীয়

সচিবালয়ে ঈদের আমেজ

Dark Mode

জুমবাংলা ডেস্ক : পবিত্র ঈদুল আজহার তিন দিন ছুটির পর খুলেছে সরকারি অফিস। প্রশাসনের প্রাণকেন্দ্র সচিবালয় ঘুরে দেখা গেছে, কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতি কম। মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী, কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রয়েছেন খোশ মেজাজে।

ঈদের পর প্রথম কর্মদিবস বুধবার সচিবালয়ের বারান্দা, সিঁড়ি, লিফট, সর্বত্রই ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় চলছে। একে অপরকে দেখামাত্রই বুকে জড়িয়ে নিচ্ছেন। ভেদাভেদ নেই কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে।

বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা জানান, দুদিন পর সাপ্তাহিক ছুটি, তাই কিছু কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐচ্ছিক ছুটি নিয়েছেন। তবে আগামীকাল ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধুর শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি থাকায়, খুব বেশি কর্মকর্তা-কর্মচারী ঐচ্ছিক ছুটি নেননি।

সচিবালয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়, খাদ্য মন্ত্রণালয়, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়, ভূমি মন্ত্রণালয়সহ কয়েকটি মন্ত্রণালয় ঘুরে দেখা গেছে উপস্থিতি স্বাভাবিক সময়ের তুলনায় কম। যারা এসেছেন কাজে-কর্মে ব্যস্ত। কেউ কেউ পারস্পরিক খোঁজ-খবর ও শুভেচ্ছা বিনিময় করছেন। কয়েকটি মন্ত্রণালয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীরা মিষ্টিমুখ করেছেন।

লিফটগুলোর সামনে তেমন ভিড় ছিল না। তবে গাড়ি রাখার স্থানগুলো অন্য সময়ের মতো গাড়িতে পূর্ণ ছিল। দর্শনার্থীদের অভ্যর্থনা কক্ষ ছিল দর্শক শূন্য।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ে দেখা গেছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৪তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে মন্ত্রণালয়ের কর্মসূচি ও অনুষ্ঠান আয়োজন নিয়ে প্রস্তুতি চলছে।

একই ধরনের কর্মতৎপরতা দেখা গেছে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়েও। মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ শিবলী সাদিক জানান, জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আগামীকাল বিকেল ৩টায় মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে বিসিএস প্রশাসন একাডেমিতে বঙ্গবন্ধুর জীবন ও কর্মের উপর আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর