ঢাকা বিভাগীয় সংবাদ

সেই কোরবানির মহিষের তাণ্ডব, ব্যর্থ পুলিশের গুলিও (ভিডিওসহ)

Dark Mode

জুমবাংলা ডেস্ক : টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার যুগিহাটীতে কোরবানির জন্য আনা মহিষের তাণ্ডবে একই পরিবারের ৬ জনসহ ১২ জন গুরুতর আহত হয়েছেন। গু’লি করেও মহিষটিকে ধরা সম্ভব হয়নি। টাঙ্গালের সখিপুর উপজেলার কাইতলা হাট থেকে ১ লাখ ৪২ হাজার টাকা দিয়ে কোরবানির জন্য মহিষ কিনে আনেন ঘাটাইল উপজেলার যুগিহাটী গ্রামের আরিফ হোসেন।

সোমবার ঈদের নামাজের পর কোরবানি দেয়ার প্রস্তুতিকালে মহিষটি হঠাৎ লাফিয়ে উঠে উপস্থিত কয়েকজনকে আহত করে দৌড়ে চলে যায়।

মহিষটিকে স্থানীয় লোকজন নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে যুগিহাটী থেকে চলে আসে ভূঞাপুরের বিদ্যুৎ সাবস্টেশনের কাছে, সেখান থেকে পার্শবর্তী কাগমারী পাড়া গ্রামে চলে যায়।

সংবাদ পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করে। সেখানে ভূঞাপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঝোটন চন্দ উপস্থিত হলে পুলিশ এক রাউন্ড গু’লি ছোড়ে। সে গু’লিও লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

মহিষটি রাত ১টার দিকে চার কিলোমিটার দুরে ভূঞাপুরের অলোয়া গ্রামের চকের পানিতে অবস্থান নেয়। উন্মাদ ওই মহিষটিকে দেখতে হাজার হাজার উৎসুক জনতা ভিড় করে।

মহিষের হিংস্রতায় আহত হয়েছেন যুগিহাটী গ্রামের আরিফ হোসেন, বড় ভাই আকতার হোসেন, ছোট ভাই সাইফুল, ভগ্নিপতি শহিদুল ইসলাম, ভাগিনা ইকবাল, যুগিহাটীর আব্দুল কাদেরসহ আরও কয়েকজন। আহতদের ভূঞাপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঝোটন চন্দ জানান, ঢাকার প্রাণীসম্পদ বিভাগের বিশেষজ্ঞ দলকে সংবাদ দেয়া হয়েছে, তারা আসলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। বর্তমানে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা এলাকার নিরাপত্তায় নিয়োজিত আছে।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর