আন্তর্জাতিক

স্ত্রীর মৃতদেহকেই বিয়ে করে ভালোবাসার নজির স্থাপন যুবকের!

Dark Mode

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আইন মেনে তাদের বিয়ে হয়েছিলো। কিন্তু ভাগ্যের কী নির্মম পরিহাস কনের সাজে বিয়ের পিড়িতে বসা হলো না চীনা তরুণী ইয়াং লু’র। সম্প্রতি স্তন ক্যানসারে মারা যান তিনি। কিন্তু মরার আগে স্বামীর কাছে একটাই আবদার ছিলো, মরার পর হলেও তাকে বিয়ে করতে। স্ত্রীর শেষ ইচ্ছা পূরণ করতে শেষকৃত্যের আগে শাস্ত্র মেনে স্ত্রীর মৃতদেহকে সামাজিকভাবে বিয়ে করলেন স্বামী। সম্প্রতি পূর্ব চিনের ডালিয়াং অঞ্চলে এই বিরল ঘটনা ঘটেছে। ইতিমধ্যে এটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলেছে।
বিয়ে৪৫২
চীনা তরুণী ইয়াং লু গত সাড়ে পাঁচ বছর ধরে স্তন ক্যানসারে ভুগছিলেন। চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ৬ অক্টোবর তিনি কোমায় চলে যান। এর এক সপ্তাহ পর মারা যান। মৃত্যুর সময় তার বয়স হয়েছিল ৩৫ বছর। সে দেশের রীতি অনুযায়ী, মৃত্যুর পর সাত দিন স্ত্রীর মৃতদেহের সঙ্গেই ছিলেন স্বামী শু শিনান। তারপর শেষকৃত্যের আগে সেই মৃতদেহকেই বিয়ে করেন তিনি।

ইয়াং লু এবং শু শিনান এক সঙ্গে লেখাপড়া করতেন। ২০০৭ সালে তারা প্রেমে পড়েন। ২০১৩ সালে রেজিস্ট্রি করে বিয়ে সারেন। এরপর বউ সেজে ঘটা করে বিয়ে করার শখ ছিল লু-র। কিন্তু রেজিস্ট্রির তিন মাস পরেই ক্যানসারে ধরা পড়ে তার। শুরু হয় কেমোথেরাপি। ২০১৭’তে সাময়িক ভাবে সেরেও ওঠেন তিনি। কিন্তু কিছু দিন পর ফের ক্যানসার ফিরে আসে তার শরীরে।

গত দু বছর ধরে মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছিলেন লু। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। তাই বলে স্ত্রী-র কনে সাজার ইচ্ছা অপূর্ণ থেকে যাবে, তা মেনে নিতে পারেননি শু শিনান। তাই শেষকৃত্যের আগে কফিনবন্দি স্ত্রীকে সাদা গাউন পরিয়ে বিয়ে করেন তিনি। বিয়ে নিয়ে সংবাদমাধ্যমে কিছু বলেননি শু শিনান। তবে স্ত্রীর মনোকামনা পূরণ করতেই তিনি এমন কাজ করেছেন বলে নিকটাত্মীয়দের জানিয়েছেন তিনি।



জুমবাংলানিউজ/এসওআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


জনপ্রিয় খবর

Add Comment

Click here to post a comment

সর্বশেষ সংবাদ

সর্বশেষ সংবাদ

জনপ্রিয় খবর