ক্রিকেট (Cricket) খেলাধুলা

১২ নভেম্বর বিপিএলের ড্রাফট

Screenshot_1স্পোর্টস ডেস্ক : জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে আসন্ন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট যথা সময়েই মাঠে গড়াবে বলে স্পস্ট জানিয়ে দিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। খবর বাসসের।

বঙ্গবন্ধুর জন্ম শতবার্ষিকী উদযাপনের অংশ হিসাবেই বিপিএলের আসন্ন আসরটি জাতির পিতাকে উৎসর্গ করে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ নামকরণ করা হয়েছে।

যথাসময়ে বিপিএল শুরু হওয়া নিয়ে অনেকেই শংকা প্রকাশ করলেও বিসিবি বস জানিয়ে দিলেন, আগের নির্ধারিত তারিখ ৬ ডিসেম্বরই শুরু হবে বিপিএল।

এছাড়া আগামী ১২ নভেম্বর বিপিএলের প্লেয়ার ড্রাফট অনুষ্ঠিত হবে, সেই ঘোষণাও দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি।

বিসিবির বেশ কয়েকজন পরিচালকের সাথে বোর্ড কার্যালয়ে বিপিএল নিয়ে আজ আলোচনা করেছেন পাপন। ফ্র্যাঞ্চাইজিদের ছাড়া পুরো আসরটিই বিসিবি পরিচালনা করবে বলে আগেই জানিয়েছিলো।

পাপন বলেন, ‘বিপিএলে সূচির পরিবর্তনের কোন সম্ভাবনা নেই (৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হবে বিপিএল)। আমাদের পাকিস্তান সফর রয়েছে, তাই এটি আমাদের চিন্তায় রেখেই যথাসময়ে বিপিএল শেষ করতে হবে। তবে পাকিস্তান সফরের বিষয়ে সব কিছুই নির্ভর করছে নিরাপত্তা পরিবদর্শক দলের রিপোর্টের ওপর। তারা গতকাল চলে গেছেন। আমাদের দল যদি সেখানে যায়, তবে আমাদের তার আগে এটি শেষ করতে হবে। কারন আমাদের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজন করবো। এটি এক বা দু’দিন জন্য পরিবর্তন হতে পারে। তবে এটি এখনো আমরা নিশ্চিত করতে পারিনি। তবে ৬ ডিসেম্বরকে লক্ষ্য করে আমরা প্রস্তুত হচ্ছি। ১২ নভেম্বর হবে প্লেয়ার ড্রাফট। কারন আমাদের ১০ নভেম্বর পর্যন্ত ভারতে ম্যাচ রয়েছে। তাই আমরা ১২ নভেম্বর একটি তারিখ ঠিক করেছি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আজ সবাই আলোচনা করেছি। বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এরমধ্যে বিপিএল নিয়েও আলোচনা হয়েছে। আমরা দেখেছি, ইতোমধ্যে ৩৯৩ জন খেলোয়াড় তালিকাভুক্ত হয়েছে। সাধারণত এর আগে যেসব খেলোয়াড়দের বিপিএলে দেখা গেছে, সবাই আছে এই তালিকায়। ইতোমধ্যে ৩৮ জন বিদেশী কোচ বিপিএলের জন্য আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আমাদের নয় জন স্পন্সর রয়েছে, তারা তাদের আগ্রহ দেখিয়েছে। ড্রাফটের মাধ্যমে দলের খেলোয়াড়দের নির্বাচন করা হবে। এটি দলগুলোর সিদ্বান্ত, এখানে আমাদের কিছুই করার নেই।’

পাপন আরও জানান, আগের ছয় আসরের মত খেলোয়াড়রা আর্থিকভাবে লাভবান হতে পারবে না। তিনি বলেন, ‘আগের আসরগুলোতে যেভাবে খেলোয়াড়রা অর্থ পেয়েছিলো, বিসিবি আয়োজন করায় তেমনটা হবে না। তবে এটি কেমন হবে তা বলা যাচ্ছে না। সমন্বয়ের কিছু বিষয় আছে, তাই আমরা এখনো এটি চূড়ান্ত করতে পারিনি।’

বিসিবি বস আরও বলেন, স্থানীয় কোচরা বিপিএলের দলগুলোকে গাইড করবে। তবে আগে ছিলো, বিদেশী কোচরাও দলগুলোকে দেখ-ভাল করতো।



জুমবাংলানিউজ/এসআর

সর্বশেষ সংবাদ




আপনি আরও যা পড়তে পারেন


Add Comment

Click here to post a comment